পানখিলি পাটিসাপটা পিঠা বানানোর সহজ রেসিপি

পানখিলি পাটিসাপটা পিঠা
উপকরণঃ

খিরসা তৈরী করার জন্য লাগবেঃ

  • ১কেজি লিকুইড দুধ।
  • ৩-৪টেবিল চামচ কনডেন্সড মিল্ক (চিনি ও দেয়া যাবে)।
  • ২-৩টেবিল চামচ গুঁড়া দুধ (না দিলেও চলবে)।
  • ১টেবিল চামচ চালের গুঁড়া।
  • ১টেবিল চামচ কোরানো নারকেল (না দিলেও চলবে)।
  • এলাচ গুঁড়া--সামান্য।
  • কিছু বাদাম কুচি (না দিলেও চলবে)।
পাটিসাপটার রুটির জন্য লাগবেঃ
  • ১কাপ আতপ চালের গুঁড়া।
  • ২টেবিল চামচ পান পাতার রস।
  • ১টেবিল চামচ ময়দা।
  • ১টেবিল চামচ সুজি।
  • ১টেবিল চামচ চিনি।
  • কুসুম গরম পানি (পরিমাণ মতো)।
  • রুটি বানানোর জন্য তেল (পরিমাণ মতো)।
  • সামান্য সবুজ রংয়ের ফুড কালার।
আরও লাগবেঃ
  • একটি ফ্রাইপেন।
  • কিছু ড্রাই কোরানো নারকেল এবং
  • ফয়েল পেপার।
প্রস্তুত প্রণালীঃ

  • প্রথমে পুরের জন্য খিরসা তৈরী করতে হবে। একটি পাত্রে দুধ জ্বাল দিয়ে ঘন করে নিতে হবে। দুধ যখন অর্ধেক হয়ে আসবে তখন কনডেন্সড মিল্ক, গুঁড়া দুধ, চালের গুঁড়া, নারকেল কোরানো & এলাচ গুঁড়া দিয়ে চুলার আঁচ একদম কমিয়ে অনবরত নাড়তে হবে। খেয়াল রাখতে হবে পাতিলের তলায় যাতে লেগে না যায়। গাঢ় হয়ে আসলে বাদাম কুচি দিয়ে নামিয়ে ঠাণ্ডা করে নিতে হবে।
  • এবার ২-৩টা পান পাতা আধা কাপ পানি দিয়ে ভালোভাবে ব্লেন্ড করে এর রস ছেঁকে নিতে হবে।
  • একটি ননস্টিক প্যান এ সামান্য ঘি দিয়ে ড্রাই নারকেল হালকা ভেজে পছন্দ মতো কালার দিয়ে আলাদা আলাদা বাটিতে রেখে ভাজা নারকেলের সাথে ভালভাবে মিশিয়ে নিতে হবে।
  • এখন একটি বোল এ চালের গুঁড়া + পান পাতার রস + ময়দা + সুজি + চিনি একসাথে মিশিয়ে অল্প অল্প করে কুসুম গরম পানি দিয়ে একটি ব্যাটার তৈরী করে ১৫-২০মিনিট ঢেকে রাখতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে ব্যাটারটা যেন মিডিয়াম পাতলা হয়।
  • চুলায় মিডিয়াম হিটে ফ্রাইপ্যান গরম করে নিয়ে একটি টিস্যু দিয়ে তেলের মোছা দিয়ে একটা ডালের চামচ এর সাহায্যে ব্যাটার দিয়ে প্যানের হাতল ধরে দ্রুত ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে ব্যাটার পাতলা করে দিয়ে একটু ঢেকে তারপর রুটি উলটিয়ে আবার একটু রেখে নামিয়ে ফেলতে হবে। এভাবে একটা একটা করে প্রতিবার প্যান এ তেলের মোছা দিয়ে সবগুলো পাটিসাপটার রুটি বানিয়ে ফেলতে হবে।
  • এবার একটি রুটি হাতে নিয়ে পান খিলির মতো তিন কোনা শেইপ করে এর ভিতরে খিরসা দিয়ে, কোনা সাইড টা ফয়েল পেপার দিয়ে মুড়ে নিয়ে এবং খিরসার উপর কালার করা নারকেল ছিটিয়ে দিতে হবে। ব্যাস হয়ে গেল #পানখিলি_পাটিসাপটা_পিঠা। এভাবে একটা একটা সব পিঠা বানিয়ে নিতে হবে।

নোটসঃ
*এই পিঠা ঠান্ডা অথবা গরম গরম খেতে দারুণ মজা।
*খিরসা/পুর অন্য ভাবেও করা যায়।
*নিজের পছন্দ অনুযায়ী মিষ্টি কম অথবা বেশি দিতে পারেন।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন