মুরগীর রোষ্ট

মুরগীর রোষ্ট

মুরগীর রোষ্ট: অনেকে রোস্টের মিষ্টি স্বাদ পছন্দ করেন না। যারা মিষ্টি রোস্ট পছন্দ করেন না, তাদের জন্য এই রেসিপিটি। মজাদার মুরগির ঝাল রোস্ট সাদা পোলাওয়ের সঙ্গে খেতে সুস্বাদু। জেনে নিন রেসিপি।


উপকরন:


  • ২ পিস চিকেন
  • ১/২ কাপ পিয়াজ বেরেস্তা
  • ২ টেবিল চামচ টক দই
  • ১ কাপ হেভী ক্রীম
  • ১ টেবিল চামচ আদা বাটা
  • ১/২ চা চমচ রসুন বাটা
  • ১ টেবিল চামচ ক্যাসিও নাট বাটা
  • ১ টেবিল চামচ টমেটো সস
  • ৩ টি এলাচ
  • ২ টুকরা দারুচিনি, 
  • ৩-৪ টি গোল মরিচ গুড়ো করে নেওয়া
  • জয়ফল ১/৪ চা চামচ গুড়ো
  • জয়ত্রী ১ চিনটি গুড়ো
  • ঘি ১ কাপ
  • কেওরা জল ১ চা চামচ
  • কাঁচা মরিচ ২-৩ টি
  • কাঁচা মরিচ বাটা ১/২ চা চামচ
  • কিসমিস ৩-৪ টি
  • লবন স্বাদমত
  • চিনি ১ চা চামচ
  • পানি ১/২ কাপ

প্রনালী: 

  • প্রথমে এক চিমটি লবন দিয়ে মুরগীর পিস টি ৩ টেবিল চামচ ঘি তে ভেজে নিতে হবে। এবার একটি প্যানে ১/৪ কাপ ঘি দিয়ে একটু গরম হয়ে আসলে আদা বাটা, রসুন বাটা, মরিচ বাটা দিয়ে ১ মিনিট ভাজতে হবে। 
  • এবার সামান্য একটু পানি দিয়ে গরম মসল্লা গুড়ো, জয়ফল জয় ত্রী গুড়ো এবং টমেটো সস ও লবন দিয়ে ভাল ভাবে রান্না করতে হবে যতক্ষন না তেল উপরে উঠে আসে। 
  • এবার মুরগীর পিস দিয়ে নেড়ে এতে বাদাম বাটা, টক দই ও ক্রীম দিয়ে অল্প নেড়ে ১/৪ কাপ পানি দিয়ে দিয়ে চুলার আঁচ কমিয়ে ঢাকনা দিয়ে রান্না করতে হবে। পানি ফুটে উঠলে লবন চেক করে কিসমিস দিয়ে দিতে হবে।
  • এবার আপেক্ষা করতে হবে পানিটা কিছুটা কমে আসা পর্যন্ত। পানি কমে আসল পিয়াজ বেরেস্তা দিয়ে নেড়ে তারপর কাঁচা মরিচ , চিনি ও কেওরা জল দিয়ে ৩ মিনিট অল্প আঁচে দমে রাখতে হবে। 
  • ৩ মিনিট পর চুলা বন্ধ করে আরও ৫ মিনিট ঢেকে রেখে দিতে হবে। তারপর পরিবেশন করুন।
বিদ্র: সম্পূর্ন রান্নাটি মিডিয়াম লো আচে রান্না করেছি। মুরগী ভাজার সময় মিডিয়াম আঁচে সময় নিয়ে প্রায় ৮০% সিদ্ধ করেছি। এ জন্য পানিতে মুরগী সু সিদ্ধ হয়েছে। সুসিদ্ধ করতে যতটুকু পানি প্রয়োজন ততটুকু দিবেন কিন্তু বেশি দেওয়া যাবে না। কিছুক্ষন পর পর ঢাকনা খুলে নাড়তে হবে

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন